মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:২৪ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ
দেশের সকল জেলা, থানা/উপজেলা/ইউনিয়ন এবং বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে " স্বাধীন বার্তা ২৪ " এ চীফ রিপোর্টার, স্টাফ রিপোর্টার ও প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে আগ্রহী প্রার্থীরা আজই যোগাযোগ করুন bdsadhinbarta24@gmail.com । প্রিয় পাঠক আপনিও “ স্বাধীন বার্তা ২৪ ” নিউজকে পাঠাতে পারেন আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া অপ্রীতিকর ঘটনার কথা জানাতে পারেন আপনার অভিজ্ঞতা অথবা আপনিও হতে পারেন একজন সাংবাদিক । স্বাধীন বার্তা ২৪ এর সাথে থাকার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ আমাদের সাথেই থাকুন
শিরোনামঃ
১নং সদিয়া চাঁদ পুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর গঠন সিরাজদিখানে ৩ টি ইটভাটাকে ৩ লাখ টাকা জরিমানা নাগরপুরে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮৫ তম জন্ম দিন পালিত দীর্ঘ ২০ বছর রাস্তায় ঘুরে পোস্টার থেকে বিসমিল্লাহ ও আল্লাহর নাম সংগ্রহ করেন হোসনে আরা হেলেনা জাহাঙ্গীর আ.লীগের মহিলা বিষয়ক কেন্দ্রীয় উপকমিটির সদস্য মনোনীত সিরাজদিখানে সড়ক দুর্ঘনায় ২ জন গুরুতর আহত চট্টগ্রাম যুবলীগের দায়িত্ব পেলেন ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নাঈম! যুবলীগ নেতা আসলামের পক্ষথেকে অভিনন্দন কোটচাঁদপুরে দলীয় সিধান্তে আ.লীগ থেকে দুই মেয়র প্রার্থী বহিস্কার কুষ্টিয়ায় র‍্যাবের অভিযানে ১৫০ বোতল ফেন্সিডিল ও এ্যালকোহল যুক্ত মদ সহ ১ জন আসামী গ্রেফতার সেনবাগে এশিয়ান টিভি’র ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন

অবশেষে মুক্তি পেলেন মাহমুদ হাসান বিপু

রিপোর্টারের নাম / ৩২৯ বার
আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১২ জানুয়ারী, ২০২১




নিজস্ব প্রতিনিধিঃ ছাড়া পেলেন যশোর শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম মাহমুদ হাসান বিপু। আজ মঙ্গলবার দুপুর দু’টোর পর যশোর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহিত কুমার নাথ ও দলের শহর সভাপতি অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান আসাদের জিম্মায় কোতোয়ালি থানা থেকে বিপুকে ছেড়ে দেয় পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মোহিত কুমার নাথ এবং জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর জহুরুল ইসলাম। বিপু ছাড়া পেলেও তার সাথে আটক অপর তিনজনের ব্যাপারে কেউ কিছু বলতে পারেননি।

উল্লেখ্য, সোমবার রাতে যশোর শহরের হযতর গরীব শাহ রোডের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় একটি তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে পুলিশ সদস্যদের সাথে বাকবিতন্ডার জেরে পুলিশ বিপুসহ চারজনকে নিয়ে যায়। তবে, বিষয়টি দ্রুত ছড়িয়ে পড়লেও পুলিশ মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত তাদেরকে নিয়ে যাওয়ার কথা স্বীকার করেনি।

এদিকে, বিপুর সাথে নিয়ে যাওয়া অপর তিনজনের ব্যাপারে আওয়ামী লীগের নেতারা কোনো তথ্য দিতে পারেন নি। মীর জহুরুল ইসলাম বলেছেন, ‘বাকি তিনজনের ব্যাপারে আমাদের কোনো কথা নেই। আমরা তাদের জন্য না, বিপুর জন্য কাজ করছিলাম। বিপুকে আমরা নিয়ে এসেছি’।
থানা থেকে দলের জেলা কার্যালয়ে উপস্থিত নেতাকর্মীদের কাছে ঘটনার বর্ণনা দিতে যেয়ে বিপু বলেন, একটি অনাকাঙ্খিত ঘটনার সুষ্ঠু মিমাংসা করতে গিয়েছিলেন তিনি। পরিস্থিতি যাতে খারাপের দিকে না যায় সে চেষ্টাই তিনি করেছিলেন। কিন্তু, ভুল বোঝাবুঝির কারণে পুলিশ তাকে নিয়ে যায়।

তিনি বলেন, তার ব্যাপারে জেলাব্যাপী দলের নেতাকর্মীরা যে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন তাতে তিনি অভিভূত। এটা তিনি কোনো দিনই ভুলবেন না। বক্তৃতার এক পর্যায়ে আবেগাপ্লুত হয়ে কেঁদে ফেলেন বিপু।





আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিস্তারিত







Theme Created By ThemesDealer.Com