শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
ওই ২৪০ জনের কাউকে ছাড়ছি না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিজয় দিবসে দেশের সব মানুষকে শপথ করাবেন প্রধানমন্ত্রী শ্রীলেখার খোলামেলা ফটোশুটের ভিডিও ভাইরাল জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী ১০নং হরিশংকরপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান খন্দকার ফারুকুজ্জামান ফরিদ যশোরে অন্ত:স্বত্তা স্ত্রী হত্যার দায়ে একজনের মৃত্যুদন্ড যশোরে ৬ তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু যশোরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় যুবকের মৃত্যু খাজাঞ্চি পশ্চিম ইউনিয়ন আল ইসলাহ’র কমিটি: সভাপতি মোসাদ্দিক সম্পাদক নিজাম বর্ণাঢ্য আয়োজনে বিশ্বনাথে লার্ণিং পয়েন্টের ১৭ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন চাঁদপুরে আনসার ভিডিপির বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা

কুষ্টিয়ায় দিনদুপুরে পুলিশের এএসআই স্ত্রী পুত্রসহ তিনজনকে গুলি করে হত্যা

স্বাধীন বার্তা২৪ / ৮৭ বার
আপডেট সময় রবিবার, ১৩ জুন, ২০২১, ১২:১৫ অপরাহ্ন

ডেস্ক রিপোর্টঃ কুষ্টিয়ায় দিনদুপুরে পুলিশের এক এএসআই তার দ্বিতীয় স্ত্রী ও তার পুত্রসহ তিনজনকে গুলি করে হত্যা করেছে। সকাল ১১টার দিকে শহরের কাস্টমস মোড় এলাকার একটি মার্কেটের সামনে এ ঘটনা ঘটে। অস্ত্রসহ ঘাতক এএসআই সৌমেন রায়কে আটক করেছে পুলিশ।

রবিবার সকালে কুষ্টিয়া শহরের কাষ্টমমোড়ে নাজ ম্যানশন নামক একটি মার্কেটে বিকাশ এর দোকানে বিকাশেরই কর্মী বয়ফ্রেন্ড সাকিল খানের সঙ্গে দেখা করতে আসে আসমা খাতুন (২৫)। এসময় আসমার সঙ্গে তার শিশু ছেলে রবিনও ছিলো।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হঠাৎ সেখানে হাজির হোন আসমার সাবেক স্বামী পুলিশের এএসআই সোমেন। মার্কেটের ভেতরে প্রথমেই সে সাকিল ও সাবেক স্ত্রী আসমার উপর গুলি চালান। এসময় আসমার শিশু ছেলে রবিন বাইরে পালিয়ে আসলে সোমেন তেড়ে এসে ওই শিশুকেও গুলি করে। পরে স্থানীয়রা ছুটে আসলে সোমেন শূন্যে গুলি করে ত্রাস সৃষ্টি করে। পরে লোকজন ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে তাকে থামানোর চেষ্টা করে। এ সময় খবর পেয়ে পুলিশও সেখানে পৌঁছে যায়। এক পর্যায়ে সোমেন ধরা দেয়।

পরে স্থানীয়রা তিনজনকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকৎসক সবাইকেই মৃত বলে ঘোষণা করে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সোমেন কুষ্টিয়ার হালশা ক্যাম্পে থাকা অবস্থায় কুমারখালী উপজেলার সাওতা গ্রামের আসমার সঙ্গে পরিচয় হয়। এরপর আসমার সঙ্গে তার বিয়ে হয় বলে দাবী পুলিশের। পরে সোমেন (বর্তমান পোস্টিং) খুলনার ফুলতলায় বদলী হলে আসমা তার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। আসমা তার বর্তমান বয়ফ্রেন্ড বিকাশ কর্মী সাকিলের সঙ্গে সম্পর্কে যুক্ত হলে ক্ষেপে যান সোমেন। এই বিরোধে সোমেন ক্ষিপ্ত হয়ে এই ঘটনা ঘটিয়েছে।

কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার খাইরুল আলম জানান, সৌমেন রায় পুলিশের এএসআই। বর্তমানে খুলনার ফুলতলা থানায় কর্মরত। এর আগে তিনি কুষ্টিয়ায় চাকরি করেছেন। পরকিয়ার জেরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে।

বিষযটি তদন্ত করে বিস্তারিত জানানো হবে বলেও জানান পুলিশ সুপার। এই ঘটনায় পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকতারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।





আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিস্তারিত




Theme Created By ThemesDealer.Com