বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:৫৪ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
ওই ২৪০ জনের কাউকে ছাড়ছি না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিজয় দিবসে দেশের সব মানুষকে শপথ করাবেন প্রধানমন্ত্রী শ্রীলেখার খোলামেলা ফটোশুটের ভিডিও ভাইরাল জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী ১০নং হরিশংকরপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান খন্দকার ফারুকুজ্জামান ফরিদ যশোরে অন্ত:স্বত্তা স্ত্রী হত্যার দায়ে একজনের মৃত্যুদন্ড যশোরে ৬ তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু যশোরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় যুবকের মৃত্যু খাজাঞ্চি পশ্চিম ইউনিয়ন আল ইসলাহ’র কমিটি: সভাপতি মোসাদ্দিক সম্পাদক নিজাম বর্ণাঢ্য আয়োজনে বিশ্বনাথে লার্ণিং পয়েন্টের ১৭ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন চাঁদপুরে আনসার ভিডিপির বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা

কুষ্টিয়া শহরে প্রকাশ্যে চলছে অভিনব কায়দায় মাদকের রমরমা ব্যবসা

আকরামুজ্জামান আরিফ / ২৬৯ বার
আপডেট সময় রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০, ৮:১০ পূর্বাহ্ন

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার জনাব এস,এম তানভীর আরাফাত (বি পি এম বার)জেলাতে যোগদানের পর থেকে মাদকের বিরুদ্ধে জেহাদ ঘোষনা করেন। এর প্রেক্ষিতে জেলার বেশির ভাগ মাদকের গড ফাদাররা হয় পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধ করতে যেয়ে মৃত হয়েছে, আবারও কেউ কেউ সাভাবিক জীবনে ফিরে আসার জন্য আত্নসমর্পণের সুযোগ কাজে লাগিয়ে স্বাভাবিক জীবন এ ফিরে এসেছে।

কিন্তু কিছু মাদক সেবি এখনো তাদের মাদকের সেবন অব্যাহত রাখতে অভিনব কায়দায় শহর অঞ্চলের বিভিন্ন জায়গায় মাদকের ব্যাবসা অব্যাহত রেখেছে।

অনুসব্ধানে জানাযায় যে এদের নামে একাধিক মাদকের মামলা আছে, যা এখনো বিচারাধীন।

সবাই মাদক সেবি, মাদকের চাহিদা মেটানোর জন্য এ ব্যাবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

হরিশংকরপুর মসজিদের পাশে ফজলুর ৫২ পুত্র একাধিক মাদক মামলার আসামি সেরেগুল৩৬,হরিশংকরপুর ও লালন শাহ এর মাজার এলাকায় ড্রাইভার ৫০ ও রুবেল ২২  এর সাহায্যে হেরইন এর ব্যাবসা চালিয়ে যাচ্ছে। যা নিয়ে এলাকায় প্রায় হৈ চৈ শোনা যায়।চাঁদা গারার মাঠ এলাকার মাসুদ ৬০এর পুত্র মাদক সেবি আলহাজ নিজেই মোবাইল এর মাধ্যমে গ্রাহকদের কাছে হেরইন ও ইয়াবা ডেলিভারি দিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়।

এদিকে ছোট ওয়াল্লেস এলাকার কটাও আরিফ অর্ডার মাফিক হাট চলাকালীন সময়ে রাজার হাটের মধ্যে ও চামড়া পট্টি এলাকায় এসে হেরইন ও ইয়াবা মাদকের ডেলিভারি দিচ্ছে বলে জানাযায়। কিছুদিন আগেই হাউজিং এলাকার খাজা জামিনে মুক্ত হয়েই তার ছেলে  মানিকও ছাত্রাবাস এ কাজ করা তার স্ত্রীর মাধ্যমে হাওজিং এলাকায়, টিনসেড এলাকার কিছু চিহ্নিত মাদক সেবি দের মাধ্যমে মাদকের সরবরাহ চালু রেখেছে বলে যানা যায়।

এক সময়ের ক্রসের আসামি আমলাপাড়ার মাদক সেবি ইংরেজ মিঠু চাহিদা মোতাবেক চড় আমলাপাড়া থেকে ঘোড়ার ঘাট পর্যন্ত টাপেন্টা, ইয়াবা গ্রাহকদের কাছে পৌছে দিচ্ছে বলে যানাযায়।

করোনা দুর্যোগের মধ্যেও থেমে নেই এদের  মাদকের ব্যবসা।  দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে কঠিন শাস্তির দাবি জানিয়েছেন সচেতন সমাজ।





আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিস্তারিত




Theme Created By ThemesDealer.Com