শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:১৪ অপরাহ্ন

জমেনি দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম যশোরের চামড়ার বাজার

রিপোর্টারের নাম / ৬০ বার
আপডেট সময় শনিবার, ২৪ জুলাই, ২০২১
যশোরের চামড়ার বাজার
জমেনি দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম যশোরের চামড়ার বাজার

ডেস্ক রিপোর্টঃ দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম যশোরের রাজারহাট চামড়ার বাজারের ঈদপরবর্তি প্রথম হাট জমেনি। টানা দরপতন আর ট্যানারি মালিকদের কাছে বকেয়া আদায় না হওয়ায় কোরবানি পরবর্তী চামড়ার ব্যবসা নিয়ে উদ্বিগ্ন যশোরের ব্যবসায়ীরা। তাদের মতে, চামড়ার দাম যৌক্তিক পর্যায়ে না আসলে ধারাবাহিক লোকসানের কারণে অস্তিত্বহীন হয়ে পড়বেন।

খুলনার দীলিপ সরকার নামের এক ব্যবসায়ী দুই হাজার চামড়া ক্রয় করেছেন। যশোরের রাজারহাট বাজারে এক হাজার নিয়ে এসেছেন। তবে এখানে এনে ন্যায্য দাম পাচ্ছেন না তিনি। তিনি এক প্রশ্ন উত্তরে স্বাধীন বার্তা২৪ কে জানায় আমরা বাড়ি বাড়ি থেকে ২০ থেকে ৩০ টাকা করে ছাগলের চামড়া ক্রয় করেছি। লবন ও যাতায়াত খরচসহ প্রায় ৪০ টাকা করে পড়েছে। এখন দাম পাচ্ছি পাঁচ টাকা করে।

এ অবস্থায় চামড়া ব্যবসার সুদিন ফিরিয়ে আনতে সরকারের সহায়তা চেয়েছেন ব্যবসায়ী নেতারা। পাশাপাশি ট্যানারি মালিকদের প্রতি বিগত বছরগুলোর বকেয়া কোটি কোটি টাকা পরিশোধের আহবান জানিয়েছেন তারা। এদিকে প্রশাসন বলছেন, চামড়া পাচার ঠেকাতে সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। যশোরের রাজারহাট দেশের দণি-পশ্চিমাঞ্চলের অন্যতম বৃহত্তম চামড়ার হাট।

এই হাটে যশোরসহ খুলনা বিভাগের ১০ জেলার ব্যবসায়ীদের পাশাপাশি গোপালগঞ্জ, ফরিদপুর, রাজশাহী, পাবনা, ঈশ্বরদী নাটোরের বড় বড় ব্যবসায়ীরা চামড়া বেচাকেনা করেন। ঈদপরবর্তি সময়ে তাই এ বাজারের দিকে নজর থাকে দেশের শীর্ষস্থানীয় চামড়া ব্যবসায়ীদের। এজন্য ঈদ পরবর্তী কয়েকটি হাটেই কোটি কোটি টাকার চামড়া বিক্রি হয়।

তবে এবার তার ব্যতিক্রম ঘটেছে। ঈদ পরবতি হাটে চামড়া উঠলেও ন্যায্য মূল্য পাননি ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা। তারা জানান, যে দামে তারা চামড়া কিনেছেন সে দামেও তারা তা বিক্রিও করতে পারেননি। ছাগলের চামড়া মানভেদে ৫ টাকা থেকে ৪০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে। আর গরুর চামড়া ২শ’ টাকা থেকে ৮শ’ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে।

এ অবস্থায় তৃণমূলের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের বাঁচাতে ও চামড়া ব্যবসার সুদিন ফিরিয়ে আনতে নতুন বাজার সৃষ্টিতে সরকারকে এগিয়ে আসার আহবান এই ব্যবসায়ী নেতার। এদিকে চামড়া যাতে ভারতে পাচার না হয় তার জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে কড়া নজরদারি চালানো হচ্ছে। আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তৎপরতা চালাচ্ছে।

ঈদপরবর্তি হাটে ৩০ থেকে ৪০ হাজার পিচ চামড়া উঠেছে। এবারের ব্যবসায়ীরা ট্যানারি মালিকদের কাছে বকেয়া টাকার পরিমাণ প্রায় ১০ কোটি টাকা। ফলে চামড়ার ব্যবসা নিয়ে উদ্বিগ্ন যশোরের ব্যবসায়ীরা।

আরও পড়ুন>>                                                                                                                                                 দেশে আবার বেড়েছে করোনায় মৃত্যু                                                                                                                  দেশে এসছে আড়াই লাখ টিকা                                                                                                                             সালমান খানের স্ত্রী ও সন্তান আছে


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিস্তারিত
Theme Created By ThemesDealer.Com