মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৪:১৬ অপরাহ্ন

ফরিদপুর জেলার প্রশাসনের ৪জন কর্মকর্তাকে জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার বিতরণ।

স্টাফ রিপোর্টার, / ২২০ বার
আপডেট সময় রবিবার, ৫ জুলাই, ২০২০, ১১:৩০ পূর্বাহ্ন

ফরিদপুর জেলার প্রশাসনের ৪জন কর্মকর্তাকে কর্মদক্ষতা মূল্যায়ন করে শুদ্ধাচার পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে ফরিদপুরে জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয় । ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ পুরস্কার বিতরণ করেন। আজ ০৫ জুলাই, ২০২০ রবিবার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ পুরস্কার প্রদান করেন। জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে কর্মকর্তাদের মধ্যে এ পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এবারে মোট ৪ জনকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। পেশাগত জ্ঞান ও দক্ষতা, সততার নিদর্শন, নির্ভরযোগ্যতা ও কর্তব্যনিষ্ঠা, শৃঙ্খলাবোধ:, উন্নত আচরণ, প্রতিষ্ঠানের বিধিবিধানের প্রতি শ্রদ্ধাশীলতা, সমন্বয় ও নেতৃত্ব দানের ক্ষমতা, তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারে পারদর্শিতাসহ ১৯ টি নির্ধারিত বিষয়ে সর্বোচ্চ স্থান অর্জন করায় এ পুরস্কার প্রদান করা হয়।

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের স্থানীয় সরকারের উপপরিচালক মো: মনিরুজ্জামান, সংস্থাপন শাখার উচ্চমান সহকারী মো: ইউসুফ খলিফা, উপজেলা পর্যায়ে সালথা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ হাসিব সরকার, মধুখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক অজয় কুমার মালো এবারের পুরস্কার অর্জন করেন। পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রোকসানা রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ আসলাম মোল্লা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোহাম্মদ সাইফুল কবির, নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) আশিক আহমেদসহ প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ। জেলা প্রশাসক অতুল সরকার বলেন, ‘জনসেবায় জনপ্রশাসন’ এ বিষয়টি বিবেচনায় রেখে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা টিমওয়ার্কের মাধ্যমে কোনো ধরনের ভোগান্তি ছাড়াই সরকারি সেবা জনগণের দৌরগোড়ায় পৌঁছে দিচ্ছেন বলে সরকারের সুনাম বৃদ্ধি পেয়েছে। তিনি বলেন, কর্মক্ষেত্রে সততা ও দক্ষতার কারণে যারা পুরস্কৃত হয়েছে তারা অবশ্যই শুদ্ধাচারী। এ স্বীকৃতি ধরে রাখতে হবে।

যারা শুদ্ধাচার পুরস্কার পায়নি, কিন্তু প্রতিযোগিতায় ছিল তারাও অনেক ভালো করেছে। আগামীতে তাদের মধ্যে থেকে শুদ্ধাচারী কর্মকর্তা-কর্মচারী বেরিয়ে আসবে। কর্মক্ষেত্রে পেশাগত দক্ষতা, তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার, উদ্ভাবন চর্চা, অভিযোগ প্রতিকারে সহযোগিতা ও স্বপ্রণোদিত হয়ে তথ্য প্রকাশে আগ্রহসহ নিষ্ঠার সঙ্গে সরকারি দায়িত্ব পালনের স্বীকৃতি হিসেবে এই চার জনকে জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। এ সময় তিনি পুরস্কার প্রাপ্ত চারজনকে অভিনন্দন জানান।

 





আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিস্তারিত




Theme Created By ThemesDealer.Com