শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৪৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
ওই ২৪০ জনের কাউকে ছাড়ছি না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিজয় দিবসে দেশের সব মানুষকে শপথ করাবেন প্রধানমন্ত্রী শ্রীলেখার খোলামেলা ফটোশুটের ভিডিও ভাইরাল জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী ১০নং হরিশংকরপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান খন্দকার ফারুকুজ্জামান ফরিদ যশোরে অন্ত:স্বত্তা স্ত্রী হত্যার দায়ে একজনের মৃত্যুদন্ড যশোরে ৬ তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু যশোরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় যুবকের মৃত্যু খাজাঞ্চি পশ্চিম ইউনিয়ন আল ইসলাহ’র কমিটি: সভাপতি মোসাদ্দিক সম্পাদক নিজাম বর্ণাঢ্য আয়োজনে বিশ্বনাথে লার্ণিং পয়েন্টের ১৭ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন চাঁদপুরে আনসার ভিডিপির বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা

বেলকুচিতে প্রার্থীর বাড়িতে ককটেল বিস্ফোরণ, পুলিশের উপর হামলা: আটক দুই

চৌহালী সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি / ৩০ বার
আপডেট সময় রবিবার, ২১ নভেম্বর, ২০২১, ১১:৪৪ পূর্বাহ্ন
আটক

সোহেল রানাঃ সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলা ২ নং রাজাপুর ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারশ প্রতিক আতাউর রহমানের বাড়িতে ইট পাটকেল ও ককটেল ফাটিয়ে কর্মীদের উপর অমানবিক নির্যাতন ও মারপিট করে নৌকা প্রতিক প্রার্থী সনিয়া সবুর আকন্দের কর্মীরা।

আত্মরক্ষার জন্য এ ঘটনা তাৎক্ষণিক ভাবে পুলিশ প্রশাসনকে জানালে সঙ্গে সঙ্গে এস আই ইশান তার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনা স্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে চেষ্টা করে, তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্যর্থ হয়। এমতাবস্থায় নৌকার কর্মীরা এস আই ইশান ও সহকর্মীদের উপর অশালীন নোংরা ভাষা ও তাদের উপর চড়াও হয়ে গায়ে হাত তোলে। এমনকি একজনকে ধাক্কা মেরে মাটিতে ফেলে দিয়ে তার বন্দুক কেড়ে নেয়ার জন্য ধস্তাধস্তি করে বলে জানান তিনি।

পরিস্থিতির অবনতি দেখে এস আই ইশান থানায় ফোন দিয়ে অতিরিক্ত পুলিশ প্রশাসন চান। পরে বেলকুচি থানার সার্কেল এসপি সিদ্দিক আহমেদ ও থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম মোস্তফা সহ থানার সকল স্টাফকে সাথে নিয়ে ঘটনা স্থলে যান। অতিরিক্ত পুলিশ প্রশাসন দেখে নৌকার কর্মীরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। এসময় নৌকার দু’জন কর্মীকে গ্রেফতার করে বেলকুচি থানা পুলিশ।

এ বিষয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী আতাউর রহমানের নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান, আমার কোন কর্মীকে ভোট চাইতে মাঠে নামতে দেয় না। শুধু তাই নয় সারা ইউনিয়নে আমার ২০ হাজার পোস্টার লাগানো হয়েছে অথচ একটা পোস্টারও নেই সব ছিরে ফেলে দিয়েছে। আজ আমার বাড়িতে এসে ইট পাটকেল ও ককটেল ফাটিয়ে আমাদের উপর হামলা করে। আমার নিরাপত্তার জন্য পুলিশকে ফোন দেই কিন্তু পুলিশ কম হওয়ায় তাদের উপরও হামলা চালায়। পুলিশের পোশাক ও তাদের ঘায়ে হাত তোলায় আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। সেই সঙ্গে এদের উপযুক্ত বিচার চাই।

নৌকা প্রার্থী সনিয়া সবুর আকন্দ এ হামলার ঘটনাকে অস্বীকার করে বলেন তারা আমাদের মানহানি করার জন্য থানায় ফোন দিয়ে ভূল বুঝিয়ে আমার দুইজন কর্মীকে গ্রেফতার করানো হয়েছে।





আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিস্তারিত




Theme Created By ThemesDealer.Com