রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:২৮ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ

যশোরে দিন দিন করোনার মৃত্যুপুরীতে পরিণত হচ্ছে

রিপোর্টারের নাম / ২৮১ বার
আপডেট সময় শুক্রবার, ১৮ জুন, ২০২১, ১২:৩৪ অপরাহ্ন
যশোরে করোনায় মৃত্যু কমেছে, শনাক্তের হার
ফাইল ছবি

যশোরে দিন দিন করোনার মৃত্যুপুরীতে পরিণত হচ্ছে

এম.এইচ.উজ্জলঃ যশোরে দিন দিন করোনার মৃত্যুপুরীতে পরিনত হচ্ছে। সেই সাথে বাড়ছে করোনার আক্রান্তের সংখ্যও। যশোরে আজ শুক্রবার গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরো ২৯১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তেদের মধ্যে ৯জন ভারত ফেরত। এটি জেলায় একদিনের সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড। এছাড়া মারা গেছেন ৪জন। উচ্চ ঝুঁকির কারণে যশোরের পাঁচ পৌরসভা ও ৯টি ইউনিয়নে লকডাউন সম্প্রসারণ করা হয়েছে। তবে লকডাউন কার্যকরভাবে মানছে না সাধারণ মানুষ। এদিকে প্রশাসন বলছে লকডাউন কার্যকর করতে আরো কঠোরতা আরোপ করা হবে। সেইসাথে জনগণকেও সচেতন হওয়ার পরামর্শ তাদের।
স্বাস্থ্যবিভাগের তথ্য মতে, গত ২৪ ঘন্টায় ৬০৬জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২৯১জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৪৭ শতাংশ। আজ মারা গেছেন ৪জন। এদের মধ্যে দুইজন করোনা রোগী এবং অপর দুইজন করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি আছে১০৮ জন।

আরও পড়ুন>> খোজ মিলেছে ইসলামী বক্তা আদনানের

যশোরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজেস্ট্রেট কাজী মো. সায়েমুজ্জামান বলেন, করোনার শনাক্তের হার বৃদ্ধি পাওয়ায় আর একটি করোনা ডেডিকেটেট হসপিটাল প্রস্থত করা হয়েছে। সদর হসপিটালে করোনা রোগীর চাপ বৃদ্ধি পেলে হস্তান্তর শুরু করা হবে।
অবশ্য প্রশাসন বলছে, লকডাউন কার্যকরে সব উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সংক্রমন ঠেকাতে আরো কঠোরতা আরোপ করা হবে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন>> রংপুরে ছেলের হাতে বাবা খুন

এদিকে যশোরের অভয়নগর উপজেলায় বৃহস্পতিবারে ৪১ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত হয়েছেন ৩০ জন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা এস এম মাহামুদুর রহমান রিজভী। জানা গেছে, বৃহস্পতিবার ৪১ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজেটিভ হয়েছেন ৩০ জন। ৪১ জনের মধ্যে ২ জনকে রির্ফাড করা হয়েছে। একজনকে যশোর সদর ও অপরজনকে নড়াইলে তাদের হাসপাতালে পাঠানো হয়ে। দিন পার হচ্ছে আর অভয়নগরবাসীর মাঝে করোনার ভীতি বাড়ছে। সেই সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ। দেখা দিয়েছে করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট। এলাকাবাসীর দাবি, যশোর জেলা ভারতের বর্ডার এলাকা হওয়ায় দেখা দিয়েছে করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট। অবৈধ্য ভাবে যশোর অঞ্চলে ভারত থেকে আশা মানুষের কাছ থেকে এ সংক্রমন বাড়ছে। যার ফলে পাবলিক ট্রান্সমিশনও শুর হয়েছে। ফলে করোনার এক ভয়াবহ সময় পার করছে অভয়নগরের মানুষ।





আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিস্তারিত




Theme Created By ThemesDealer.Com