রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১২:৪০ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
যশোরে নির্বাচনের আগের দিন স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মী খুন বাড়ি ফেরা হলোনা ৩ নারী শ্রমিকের হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ভবন নির্মাণ, পুলিশের হস্তক্ষেপে কাজ স্থগিত বিশ্বনাথে এবিসি ইংলিশ ইনষ্টিটিউটের সেমিনার সম্পন্ন বিশ্বনাথে শীত বস্ত্র বিতরণ করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান নুনু মিয়া চাকিরপশার ইউপি নির্বাচনে রানু সোহরাওয়ার্দীর নির্বাচনী সভায় জনতার ঢ্ল প্রথমবারের মতো নারী বিশ্বকাপের মূলপর্বে বাংলাদেশ রাজাপুরে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান আগামী ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতিককে বিজয়ী করতে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী নির্দেশ হাফ পাসের দাবিতে পুরান ঢাকায় বিক্ষোভ মিছিল

আসছে ভয়ংকর ভাইরাস, ২ দিনেই মরবে ৮ কোটি মানুষ!

রিপোর্টারের নাম / ৪৩৬ বার
আপডেট সময় শনিবার, ২০ জুন, ২০২০

স্বাধীন বার্তা২৪ ডেস্কঃ ২ দিনেই মরবে ৮ কোটি ! করোনা ভাইরাস বিশ্বে এখন ব্যপক আতঙ্ক বিরাজ করছে। তার প্রভাব বিশ্ব থেকে এখনো যায়নি। তখনি এক ভংঙ্কর দিলো গবেষকদের তথ্য। এই গবেষকদের তথ্য বলছে, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের চেয়ে ভয়ংকর একাধিক মরণ ভাইরাস রয়েছে সারাবিশ্বে। যা খুব সহজেই এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার সাবেক এক প্রধান এ আশঙ্কা করেছিলেন বেশ কয়েক মাস আগে। তার সতর্ক বার্তা নিয়ে দ্য গ্লোবাল প্রিপেয়ার্ডনেস মনিটরিং বোর্ড (জিপিএমবি) এর ‘এ্যা ওয়ার্ল্ড এট রিক্স’ শিরোনামে প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদনে এ সতর্ক বার্তা দেয়া হয়েছিল।

গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে জিপিএমবি তাদের এ গবেষণা রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়। তখন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলের খবরে বলা হয়েছিল, জিপিএমপির গবেষকরা বলছেন, আলোচিত ইবোলা, জিকা বা ডেঙ্গুর মতো করেই এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

আরও পড়ুন>> মাশরাফি করোনায় আক্রান্ত

গবেষকরা বলা হয়েছে, ভয়ংকর এসব ভাইরাস বর্তমান সময়ে ছড়িয়ে পড়লে মাত্র দুই দিনের মধ্যে সারাবিশ্বে পৌঁছে যাবে এবং প্রায় ৮ কোটি মানুষ মারা যেতে পারে বলে ধারণা তাদের। এর আগে ১৯১৮ থেকে ১৯১৯ সালে এমন একটি মহামারি দেখা দিয়েছিল। ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের আক্রমণে তখন বিশ্বব্যাপী প্রায় ৫ কোটি মানুষের মৃত্যু হয়েছিল।

ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাস খালি চোখে দেখা যায় না। তবে জ্বর, কাঁপুনি, মাথাব্যথা, সর্দিকাশি হলে তাদের উপস্থিতি টের পাওয়া যায়। ভয়াবহ এই মহামারীকে তখন নাম দেয়া হয় স্প্যানিশ ফ্লু। এরপর বিভিন্ন সময়ে নতুন নতুন ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের উদ্ভব হয়েছে যা বিশ্বব্যাপি মানব মৃত্যুর কারণ বলে চিহ্নিত করা হয়েছে।

একই ভাইরাসের বিভিন্ন রূপ মানুষ, পাখি, শূকর প্রভৃতি জীব প্রজাতীকে নিজের পোষক রূপে ব্যবহার করতে পারে। ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের সব চাইতে ভয়াবহ ক্ষমতা হচ্ছে নিজের পোষক পরিবর্তনের ক্ষমতা। নতুন পোষক প্রজাতীতে ইনফ্লুয়েঞ্জার বিরুদ্ধে প্রতিরোধক ব্যবস্থা না থাকায় সেটি দ্রুত শরীরে স্থান করে নেয়, প্রজাতীর অনান্য সদস্যদের আক্রান্ত করে এবং পোষকের মৃত্যুর কারণ হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত।

এর আগে ২০১৬ সালে রাশিয়ার সাইবেরিয়া অঞ্চলে ১২ বছর বয়সী এক শিশুর মৃত্যু হয় অজানা রোগে। ওই এলাকার আরও প্রায় ১১৫ জন অল্প সময়ের ব্যবধানে হাসপাতালে ভর্তি হন। পরে জানা যায়, তারা সবাই একটি মারাত্মক ব্যাকটেরিয়ায় আক্রান্ত। যার নাম ব্যাসিলাস অ্যানথ্রাসিস বা অ্যান্থ্রাক্স। তবে কবে এই ভাইরাটি আক্রমন করবে তা তাদের ধারণা নেই কিন্তু যদি আক্রমন করে তাহলে বিশ্বে মহামারির সাথে পৃথীাব মৃর্তূপুরিতে পরিনত হবে গোটা বিশ্ব।

ADS: Jashore Best News Site Of Sadhinalo





আপনার মতামত লিখুন :

One response to “আসছে ভয়ংকর ভাইরাস, ২ দিনেই মরবে ৮ কোটি মানুষ!”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিস্তারিত




Theme Created By ThemesDealer.Com